13476

05/26/2024 ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মানবেতর জীবনযাপন

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মানবেতর জীবনযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৬ মার্চ ২০২৩ ০০:৩৮

রাবি শিক্ষার্থীদের সাথে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেফতার আতঙ্কে বন্ধ রয়েছে বিনোদপুর বাজারের বিভিন্ন দোকানপাট। একই সাথে ফুটপাতে বসে প্রতিদিনের আয় দিয়ে যারা সংসার চালাতেন তারা এখন মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

গত শনিবার বাস ভাড়া নিয়ে শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর বাজারে মোহাম্মদ পরিবহন নামে বাসের চালক ও হেলপারের সাথে কয়েকজন শিক্ষার্থীর সংঘর্ষ বাধে। এ ঘটনার জের ধরে দফায় সংঘর্ষে জড়ায় শিক্ষার্থী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এসময় পেট্রল বোমা মেরে পুড়িয়ে দেয়া হয় বিনোদপুর বাজারের শতাধিক দোকান। পুলিশের রাবার বুলেট ও ছোররা গুলি এবং ব্যবসায়ীদের ইটপাটকেলে আহত হয় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী। সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ও বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আলাদা মামলা করে। এ দুটি মামলায় অজ্ঞাত ৮০০জনকে আসামী করা হয়। এ বর্তমানে বারির পরিস্থিেিত স্বাভাবিক হলেও বিনোদপুর বাজার থমথমে অবস্থায় আছে। বিনোদপুর বাজারে এখনও পুলিশ মোতায়েন হয়েছে। অস্থায়ী দোকানগুলো পুড়ে যাওয়ায় গোটা বাজারই প্রায় ফাঁকা হয়ে আছে। স্থায়ী মার্কেট গুলোর প্রায় দোকান বন্ধ রয়েছে। ব্যবসায়ী নেতাদের দাবি করছেন, এ ঘটনায় তাদের অন্তত আড়াই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ক্ষতিপূরণ না দিলে মামলা করবেন তারা।

বিনোদপুর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আকরাম আলী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্রদের ওপর নির্ভর করে আমাদের ব্যবসা। বাসের চালক ও হেলপার কয়েকজন ছাত্র মারধর করে তখন মানবিক কারণে তাদের রক্ষা করতে এগিয়ে যায় স্থানীয় কয়েকজন ব্যবসায়ী। এর জের ধরে আমাদের গোটা বাজারে আগুন ধরিয়ে দিলো। ভাংচুর করলো। লুটপাট করলো তারা।

সিটি মেয়র, পুলিশ কমিশনার, ভিসি এরা সবাই নিজ চোখে দেখেছেন, ছাত্ররা কীভাবে আগুন সন্ত্রাস করেছে। অথচ উল্টো পুলিশ ও বিশ^বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধেই মামলা করলো। মামলা মাথায় নিয়ে তো কেউ দোকান খোলার সাহস পাচ্ছে না। পুলিশে গ্রেফতার করতে পারে। ছাত্ররা আবারো হামলা করতে পারে। এই আতঙ্ক আমাদের মনে’। রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সবাইকে নিয়েই আমরা চলতে চাই। আগামীতে যেন এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সেজন্য আমরা স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করবো। সম্পর্ক উন্নয়নের উদ্যোগ নেবো।

প্রকাশক ও সম্পাদক : মহিব্বুল আরেফিন
যোগাযোগ: ২৬৮, পূবালী মার্কেট, শিরোইল, ঘোড়ামারা, রাজশাহী-৬০০০
মোবাইল: ০৯৬৩৮ ১৭ ৩৩ ৮১; ০১৭২৮ ২২ ৩৩ ২৮
ইমেইল: [email protected]; [email protected]