রাত ৮টার পরেও খোলা থাকবে যেসব দোকান-প্রতিষ্ঠান

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১৯ জুন ২০২২ ১৯:২৮; আপডেট: ২৮ জুন ২০২২ ১৮:১০

ছবি: প্রতীকী

আগামীকাল সোমবার থেকে রাত ৮টার পর খোলা রাখা যাবে না মার্কেট ও শপিংমল। তবে যেসব দোকান বা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা যাবে তার তালিকা প্রকাশ করেছে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

আজ রোববার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সচিব এহছানে এলাহী জানান, নিম্নলিখিত দোকান বা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব কিছু আগামীকাল থেকে রাত ৮টার পর বন্ধ থাকবে।

১. ডাক, জেটি, বিমানবন্দর, পরিবহন সার্ভিস, টার্মিনাল ও অফিস।

২. তরকারি, মাংস, মাছ, দুগ্ধজাতীয় সামগ্রী, রুটি, পেস্ট্রি, মিষ্টি ও ফুল বিক্রির দোকান।

৩. ওষুধ, অপারেশন সামগ্রী, সরঞ্জাম, ব্যান্ডেজ ও চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রির দোকান।

৪. দাফন ও অন্ত্যষ্টেক্রিয়া সম্পাদনের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রির দোকান।

৫. তামাক, সিগারেট, পান-বিড়ি, খবরের কাগজ, সাময়িকী বিক্রির দোকান ও দোকানের বসে খাওয়ার জন্য যেসব দোকান।

৬. পেট্রোল পাম্প ও কারখানা নয় এমন মোটরগাড়ি সার্ভিসিংয়ের দোকান এবং সেলুন।

৭. পয়নিষ্কাশন ও স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান, পানি, বিদ্যুত ও গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান।

৮. ক্লাব, হোটেল, রেস্তোরা ও সিনেমা হল।

আজ সচিবালয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ সরকারের নির্দেশনার সঙ্গে একমত হওয়ার পর সিদ্ধান্ত হয়, আগামীকাল সোমবার থেকেই রাত ৮টায় বন্ধ করতে হবে মার্কেট ও শপিংমল।

তবে সমিতির নেতারা ঈদুল আজহার কারণে ১ জুলাই থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত রাত ১০টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখার অনুমতি দিতে সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন।

এই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান জানান, বাড়তি ২ ঘণ্টা দোকান খোলা রাখার বিষয়ে অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার মন্ত্রণালয় অনুরোধ জানাবে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর বিশ্বব্যাপী জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির কারণে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সম্প্রতি এই নির্দেশনা দিয়েছে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top