শ্রীলঙ্কার মতো আমাদের এলিটদেরও এক পা বিদেশে

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২২ ০৭:৫২; আপডেট: ২৬ মে ২০২২ ১৩:১০

ছবি: সংগৃহিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেছেন শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতির সঙ্গে বাংলাদেশের সরাসরি কোনো মিল নেই। দেশটিতে ত্রিশ বছর গৃহযুদ্ধের কারণে যে সমস্যা হয়েছে তা শ্রীলঙ্কা কাটিয়ে তুলতে পারেনি। সেদেশের এলিট ও বিত্তবানরা তখন থেকেই দেশ ছাড়তে শুরু করেছে। তাদের সম্পদ সব অন্য দেশে। এবং এলিট ও বিত্তবানদের সন্তানদের শ্রীলঙ্কার বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছে শিক্ষার জন্য। এই উচ্চ শ্রেণি গৃহযুদ্ধের কারণে কখনো ভরসা রাখতে পারেনি শ্রীলঙ্কার উপর। এ কারণে সে দেশে অর্থনৈতিক কাঠামো গড়ে ওঠেনি। রাজনীতিরও বিশ্রী অবস্থা। শ্রীলঙ্কার আয়ের একটি বড় খাত ছিল পর্যটন। একটি পাঁচতারকা হোটেলে বোমা হামলা এবং গত দুই বছর করোনার কারণে পর্যটকও প্রায় শূন্যের কোঠায়

উন্নয়ন যদি না হয় মানুষের পেটে যদি ভাত না থাকে তখন তো এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। বাংলাদেশের যে চিত্র তা হচ্ছে করোনা সংক্রমণের মধ্যেও অর্থনৈতিক মন্দা হয়নি। গণতন্ত্রের সমস্যা থাকলেও উন্নয়ন হচ্ছে। আমাদের দেশের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার যে মিল রয়েছে তা হলো এ দেশেরও এলিট শ্রেণির এক পা বাইরে থাকে। তারা তাদের সম্পদ ও অন্য দেশে করে এবং সন্তানদের বিদেশে পাঠিয়ে দেয়। এ কারণে আমাদের দেশের টাকা বাহিরে চলে যায়। দুর্নীতি কম-বেশি সব দেশে হয়। কিন্তু আমাদের দেশের দুর্নীতির টাকা পুরোটাই পাচার হয়ে যায়। আমি মনে করি যদি দুর্নীতির টাকা পাচার রোধ করে দেশে বিনিয়োগ করা যায় তাও দেশের টাকা দেশেই থাকলো এদিকটায় আমাদের বিশেষ নজর দেয়া দরকার। তিনি বলেন, আমাদের যেহেতু পলিসি মেকার ও অর্থনীতিবিদদের সন্তানরা বিদেশে লেখাপড়া করে সে জন্য তারা এ বিষয়ে কথা বলতে চায় না। কারণ বিদেশে যারা পড়ছে তারা তো আর দেশে ফিরে আসছে না। এতে তো দেশের কোনো উপকার হচ্ছে না। এজন্য আমাদের নজর দিতে হবে মানসম্মত শিক্ষা, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার দিকে। যাতে মানুষকে বিদেশে যেতে না হয়।



বিষয়: মতামত


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top