পেঁয়াজে সেঞ্চুরি, সবজির দামও চড়া

রাজশাহীতে বেড়েই চলেছে নিত্যপণ্যের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ৬ জুলাই ২০২৪ ১৪:০১; আপডেট: ৬ জুলাই ২০২৪ ১৪:০৩

ফাইল ছবি

রাজশাহীতে বেড়েই চলেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে দামের দিক থেকে পেঁয়াজে সেঞ্চুরি করেছে। সবজির দামও বেশ চড়া। এনিয়ে নগরবাসীর মনে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে।

গত শুক্র ও শনিবার মহানগরীর সাহেববাজার, সাগরপাড়া, নিউমার্কেট ও শালবাগান, কোট বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে সরকার নির্ধারিত দামে পাওয়া যাচ্ছে না কোনো কিছুই। বেড়েছে মাছ, মুরগিসহ সব ধরনের সবজির দাম। ব্যবসায়ীরা বলছেন, কয়েকদিনের বৃষ্টিতে সবজির সরবরাহ কমে যাওয়ার ফলে বেড়ে যায় সব ধরনের কাঁচা বাজারের দাম। রাজশাহীর বিভিন্ন বাজারে সপ্তাহের ব্যবধানে দেখা গেছে ২’শ টাকার কাঁচা মরিচ বিক্রী হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকায়। অনান্য সবজির দাম কেজি প্রতি ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। তবে ডিম, ব্রয়লার মুরগি ও মাংসের দাম উচ্চ মূল্যে স্থিতিশীল।

বাজারে প্রতি হালি লাল ডিম বিক্রি হচ্ছে ৪৮ টাকায়। সাদা ডিম বিক্রি হচ্ছে ৪৬ টাকা হালিতে। বাজারে প্রতি কেজি আলু ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১’শ থেকে ১১০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে পেঁয়াজ ছিল ৮০ টাকা কেজি। প্রতি কেজি আদা ও রসুন ২৪০ থেকে ২৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে প্রতি কেজি করলা বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা। এছাড়াও বেগুন বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৫০ টাকা। পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা। বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা, গাজর ৮০ টাকা, শসা বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা, এছাড়াও ঢ্যাঁড়স ৬০ টাকা। মিষ্টিকুমড়া ৫০, ঝিঙে ও ধুন্দুল ৫০, সজনে ডাঁটা ৮০, পটল ৫০, লাউ ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সপ্তাহে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ১৭০ টাকাতে। সোনালী মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৮০ টাকায়। গরু প্রতিকেজি ৭৫০ টাকা ও খাসি ১১০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। পাঙাশ মাছ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২২০ টাকায়, তেলাপিয়া প্রতি কেজি ২২০ থেকে ২৪০ টাকায়, চাষের শিং মাছ প্রতি কেজি ৪৮০ থেকে ৫০০ টাকায়, রুই প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকায়, চাষের কই প্রতি কেজি ৩০০ টাকায়, দেশি ছোট কই প্রতি কেজি ৬’শ থেকে ৭’শ টাকায়, পাবদা প্রতি কেজি মানভেদে ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকায়, শোল মাছ একটু বড় সাইজের প্রতি কেজি ৯০০ টাকায়, চিংড়ি প্রতি কেজি ৮০০ টাকায়, কাতলা মাছ প্রতি কেজি ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকায়, বোয়াল প্রতি কেজি ৭’শ থেকে ৮’শ টাকায় ও টেংরা মাছ ছোট সাইজের প্রতি কেজি ৫’শ থেকে ৬’শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারা জানান, গত সপ্তাহে যে সবজি ৪০ টাকা কেজি দরে কিনেছিলাম আজ এসে দেখি তা ৬০ টাকা হয়ে গেছে। বিশেষ করে করলা, শসার দাম প্রতি কেজিতে ২০-৩০ টাকা বেড়েছে। এছাড়াও পেঁয়াজের দামও বেড়েছে। মরিচও কেনা যাচ্ছে না অতিরিক্ত দামের কারণে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top