স্বামী-শ্বশুর আটক

গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

ডেস্ক নিউজ | প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:০১; আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ০৯:০৯

ফাইল ছবি

নাটোরের বড়াইগ্রামে বিনা খাতুন (১৮) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চৌমুহন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বিনা খাতুন চৌমুহন গ্রামের মোটরসাইকেল মেকানিক মাসুম সরকারের স্ত্রী। নিহতের গায়ে একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় স্বামী মাসুম সরকার (২০) ও তার পিতা শামসুল ইসলাম সরকারকে (৫৫) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। তাদের সংসারে মার্জিয়া খাতুন নামে ৯ মাস বয়সের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, প্রায় আড়াই বছর আগে মাসুমের সঙ্গে পাশের কুশমাইল ভরট গ্রামের বেলাল হোসেনের মেয়ে বিনা খাতুনের বাল্যবিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে ছোটখাটো বিষয় নিয়ে কলহ লেগে থাকতো। এ ঘটনায় একাধিকার গ্রাম্য সালিশ হয়েছে। রোববার ভোরে মাসুম হঠাৎ তার স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে চিৎকার-চেঁচামেচি করতে থাকে। পরে স্বজনসহ প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে বিনার লাশ বিছানার উপর শোয়ানো দেখতে পায়।

এ সময় মাসুম জানান, তার স্ত্রী ঘরের তীরের সঙ্গে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস নেয়। সে দেখতে পেয়ে বাঁচানোর জন্য ওড়না কেটে নিচে নামিয়েছে। কিন্তু নামানোর আগেই সে মারা গেছে।

তবে বিনা খাতুনের বড় ভাই মেহেদী হাসান বলেন, আমার ভগ্নিপতিসহ পরিবারের সদস্যরা মাঝে মাঝেই আমার বোনকে মারপিটসহ মানসিক নির্যাতন করতো। রাতের বেলায় আমার বোনকে পিটিয়ে হত্যা করে তারা পরিকল্পিতভাবে আত্মহত্যা বলে প্রচার করছে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারপিটের চিহ্ন আছে। আমার বোন হত্যার বিচার চাই।

বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহিম জানান, তার শরীরে কালশিরা দাগ আছে, তবে কিভাবে এ দাগ হয়েছে তা জানা যায়নি। নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top