যুক্তরাষ্ট্রে ঝড়ের তাণ্ডবে নিহত ১৪, ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ ৩ রাজ্যে

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ২৭ মে ২০২৪ ১৩:৫২; আপডেট: ২৫ জুন ২০২৪ ২৩:৪৭

- ছবি - ইন্টারনেট

যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা, টেক্সাস এবং আরকানসাস জুড়ে শক্তিশালী ঝড়ে রোববার কমপক্ষে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং তার গতি পথে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ রেখে গেছে। ঝড় মধ্য যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানার পর বাড়িঘর নিশ্চিহ্ন এবং একটি ট্রাক স্টপ ধ্বংস করেছে, যেখানে ড্রাইভাররা সর্বশেষ মারাত্মক আবহাওয়ার সময় আশ্রয় নিয়েছিল।

কর্মকর্তারা জানান, ওকলাহোমা সীমান্তের কাছে টেক্সাসের কুক কাউন্টিতে সাতজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সেখানে শনিবার রাতে টর্নেডো একটি মোবাইল হোম পার্কের কাছে একটি গ্রামীণ এলাকায় ধ্বংসযজ্ঞ চালায়।

ওকলাহোমাতেও ঝড় ক্ষয়ক্ষতি করেছে। সেখানে বহিরাঙ্গনে আয়োজিত একটি বিবাহের অতিথিরা আহত হয়। এলাকা জুড়ে হাজার হাজার বাসিন্দা বিদ্যুৎবিহীন ছিল।

কুক কাউন্টি শেরিফ রে স্যাপিংটন দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে বলেন, ‘এখানে কেবল ধ্বংসাবশেষের চিহ্ন রয়ে গিয়েছে। ধ্বংসযজ্ঞটি বেশ গুরুতর।’

আরকানসতে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন বলে জানা যায়। ওকলাহোমার মায়েস কাউন্টিতেও কর্মকর্তারা দু’জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

দেশটির মাঝামাঝি অংশে চরম আবহাওয়ার একটি ভয়াবহ মাসের ধারাবাহিকতায় এ ধ্বংসযজ্ঞ চলে।

এই সপ্তাহে আইওয়াতে টর্নেডোতে অন্তত পাঁচজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এপ্রিল মাসে দেশটির রেকর্ডে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক টর্নেডোর ঘটনা ছিল।

কুক কাউন্টির মুখপাত্র ডন কোব বলেন, টেক্সাসে একটি টর্নেডো ডালাসের উত্তরে ডেন্টন কাউন্টিতে প্রবেশ করে। এর ফলে মহাসড়ক ইন্টারস্টেট ৩৫-এ যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ভোর হওয়ার সাথে এ ধ্বংসযজ্ঞের পূর্ণ পরিধি প্রকাশ পেতে থাকে। আকাশ থেকে রেকর্ড করা ফুটেজে কয়েক ডজন ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি দেখা যায়, যার মধ্যে অনেকগুলো ছাদবিহীন এবং অন্যান্যগুলো ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।

স্টেট অফিস অফ ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট অনুসারে, ঝড়ের তীব্রতায়, ওকলাহোমায় ২৪ হাজারেরও বেশি বাড়ি এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎ হারায়।

ঝড়টি সারারাত ধরে অঞ্চলটি জুড়ে ক্রমে এগিয়ে আসতে থাকলে মানুষদের আশ্রয় নেয়ার জন্য আবহাওয়াবিদ এবং কর্তৃপক্ষ জরুরি সতর্কতা জারি করে।

নরম্যানের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস অফিস সোশ্যাল মিডিয়া এক্স-এ পোস্ট করে, যা আগে টুইটার নামে পরিচিত ছিল, ‘আপনারা যদি এই ঝড়ের গতিপথে থাকেন তবে এখনই আশ্রয় নিন!’

এপ্রিল এবং মে মাসে টর্নেডো বেশি আঘাত হানে, বিশেষ করে দেশটির মধ্য-পশ্চিম অঞ্চলে।

যে পদ্ধতিটি সর্বশেষ গুরুতর আবহাওয়া সৃষ্টি করেছে তা মেমোরিয়াল ডে সপ্তাহান্তের শেষের দিকে পূর্ব দিকে সরে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পূর্বাভাসকরা জানান, সোমবার মারাত্মক আবহাওয়ার ঝুঁকি উত্তর ক্যারোলাইনা এবং ভার্জিনিয়ার দিকে সরে আসবে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top