প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

চাঁদের খোঁজ জানে না কেউ, হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২৩ ২১:২১; আপডেট: ১৯ জুন ২০২৪ ০৬:২২

ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির পর থেকে লাপাত্তা রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ। বিভিন্ন সময় নানা ধরণের বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় থাকা প্রায় অর্ধশতাধিক মামলার আসামি চাঁদকে গ্রেফতারে হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ। গত ৬ দিন ধরে তার কোন নাগাল পাচ্ছে না আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা।

এ দিকে চাঁদের এমন কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যে চরম বিব্রতকর অবস্থায় স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দরা। ফলে দলীয় ভাবে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থার মুখেও পড়তে পারেন আলোচিত বিএনপি নেতা চাঁদ, বলে জানান বিএনপির একাধিক নেতৃবৃন্দ।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, গ্রেপ্তারের জন্য রাজশাহী জেলা পুলিশের বেশ কয়েকটি দল সোমবার রাতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালালেও অভিযুক্ত বিএনপি নেতাকে এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

জানা যায়, গত ১৯ মে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার শিবপুরে কেন্দ্রীয় কর্মসূচী পালনের সময় সভাপতির বক্তব্যে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ প্রধানমন্ত্রীকে কবরস্থানে পাঠাতে হবে বলে উদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দেন। এরপর চাঁদের সেই বেফাঁস বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে ফুঁসে উঠে গোটা দেশে আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনর নেতাকর্মীসহ সমর্থরা। বিক্ষোভে-বিক্ষোভে, শ্লোগানে-শ্লোগানে চাঁদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবির পাশাপাশি তাকে গ্রেপ্তারে শোরগোল হয়ে উঠো গোটা দেশ।

পুঠিয়া ও নাটোর সদর থানাসহ দেশের বিভিন্ন থানায় সন্ত্রাস দমনসহ বিভিন্ন অপরাধে একের পর এক হতে থাকে মামলা। ওই সব মামলায় চাঁদকে গ্রেফতারে মাঠ পর্যায়ে ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা।

তবে গত ৬ দিন ধরে লোক চক্ষুর আড়ালে রয়েছেন চাঁদসহ তার একান্ত সহকারী। ফলে চাঁদের বাড়িসহ সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে একাধিকবার সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করেও তার লাগাল পাচ্ছে না আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা।

এ দিকে চাঁদের এমন বেফাঁস বক্তব্যে ইতিমধ্যে দু:খ প্রকাশ করে বক্তব্য দিয়েছেন দলটির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এবং রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও রাজশাহী সদরের সাবেক এমপি মিজানুর রহমান মিনু। মিজানুর রহমান মিনু চাঁদের বক্তব্যকে 'অনিচ্ছাকৃত ভুল' আখ্যা দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন।

স্থানীয় সাংবাদিকদের ফোন করে তিনি বলেন, 'রাজনৈতিক সভাগুলোতে ভাষণ দেওয়ার সময় এ ধরনের ঘটনা ঘটে, ভুল হয়। অবিলম্বে চাঁদের ক্ষমা চাওয়া উচিত ছিল।'

মিনু আরও বলেন, 'চাঁদের বক্তব্যের সঙ্গে তার দলের কোনো সম্পর্ক নেই। বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক সরকার চায়, এটাই বলার জন্য আমাদের দলের উচ্চপর্যায়ের নির্দেশে রয়েছে। কিন্তু চাঁদ আবেগের বশবর্তী হয়ে ভুল করেছে, তার জন্য আমি সবার কাছে ক্ষমা চাইছি।'

বিষয়টি সম্পর্কে চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুল আলম বলেন, ‘ঘটনার পর থেকে তাকে গ্রেফতারে তৎপর রয়েছে পুলিশ। বিভিন্ন ইউনিটে কাজ চলমান রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাকে গ্রেফতারে সম্ভব হবে বলে তিনি আশা করেন।’

রাজশাহীর পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন বলেন, 'আমরা তাকে খুঁজে পাইনি। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছি।'



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top