চাঁপাইনবাবগঞ্জে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব রড-সিমেন্টে

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০২২ ২০:২৯; আপডেট: ২ অক্টোবর ২০২২ ১৫:৩৭

ছবি : প্রতিকী

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে রড-সিমেন্টের দামে। কোম্পানিভেদে প্রতি বস্তা সিমেন্টে ৩০-৫০ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে। রডের দামেও ঊর্ধ্বগতি। এতে বিপাকে পড়েছেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান, ভবন মালিক ও ব্যবসায়ীরা।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বিকেলে জেলার বিভিন্ন রড-সিমেন্টের দোকানে গিয়ে এ তথ্য জানা গেছে।

জেলা শহরের আরামবাগ এলাকার মেসার্স নূর এন্টারপ্রাইজের মালিক রনি আলী জাগো নিউজকে বলেন, ‘গত শুক্রবারের আগে যে সিমেন্টের দাম ছিল ৫২০ টাকা বস্তা, এখন তা কিনতে হচ্ছে ৫৫০ থেকে ৫৬০ টাকা দিয়ে। আর গাড়ি ভাড়া তো আছেই। এতে ভোক্তাদের কাছে প্রতি বস্তায় প্রায় ৪০ টাকা বেশি দরে বিক্রি করতে হচ্ছে।’

শিবগঞ্জ বাজারের রট-সিমেন্ট ব্যবসায়ী বসু আলী। তিনি বলেন, ‘গত চারদিনের ব্যবধানে সিমেন্টের দাম বস্তায় প্রায় ৩০-৫০ টাকা বেড়েছে। এতে আমাদের ব্যবসা করতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে। কারণ পণ্যের দাম বেশি হওয়ায় পুঁজি বেশি লাগছে। ক্রেতারা রট-সিমেন্ট কিনতে এসে দামাদামি করছেন।’

শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্তি বাজারের রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী সইবুর আলী জাগো নিউজকে বলেন, ‘তিনদিন আগে যে রডের দাম ছিল ৮৯ টাকা কেজি, আজ সেই রডের দাম ৯৬ টাকা। তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর থেকে এখন পর্যন্ত রডের দাম কেজিতে প্রায় সাত টাকা বেড়েছে।’

জেলা শহরে রড-সিমেন্ট কিনতে এসেছিলেন আসাদুল ইসলাম। তার সঙ্গে কথা হয় জাগো নিউজের। তিনি বলেন, ‘গতবছর বাড়ির কাজ শুরু করেছিলাম। কিন্তু টাকার অভাবে শেষ করতে পারিনি। গত দুদিন ধরে শহরের বিভিন্ন দোকানে ঘুরছি রড-সিমেন্ট কিনবো বলে। তবে দাম বেশি হওয়ায় কিনতে পারছি না। ১০ দিন আগে যে এক বস্তা সিমেন্টের দাম ছিল ৫০০ টাকা, সেই সিমেন্ট বর্তমানে ৫৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে গেছে রড-সিমেন্টের দাম।’

এদিকে জেলার বিভিন্ন এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানে গিয়েও দাম বৃদ্ধির খবর পাওয়া গেছে। ১২ কেজি এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে ১২৬০ থেকে ১৩০০ টাকায়। যা তিনদিন আগে বিক্রি হচ্ছিল ১২৩০ থেকে ১২৬০ টাকায়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চাঁপাইনবাবগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফজলে এলাহী জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি গতকাল যোগদান করেছি। তবে বিভিন্ন পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির কারণে কোনো অসাধু ব্যবসায়ী যাতে কোনো পণ্যের দাম বেশি না নিতে পারেন সেজন্য আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে সার্বিক পরিস্থিত দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top