বাঘায় আ.লীগ নেতা লাঞ্চিতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০২১ ১৯:১০; আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২১ ০৩:১১

রাজশাহীর বাঘায় আওয়ামীলীগ নেতা কাফাতুল্লাহকে লাঞ্চিতের ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সোমবার (১৪ জুন) উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে সভায় এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কাফাতুল্লাহ সরকার উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি।

জানা যায়, শনিবার (১২ জুন) মনিগ্রাম বাজারে মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল গণি সদস্য আফাজ উদ্দিন, আবদুস সামাদ, শাহিন আলমসহ কয়েকজন কাফাতুল্লাহ সরকারকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করা হয়। কি কারনে তাকে লাঞ্চিত করা হয় সেই বিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কাফাতুল্লাহ সরকার।

আয়োজিত সভায় উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মুন্টুকে আহবায়ক করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অন্য সদস্যরা হলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহমান, মুঞ্জুরুল ইসলাম, মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান।

সভায় লাঞ্চিতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে আগামী দুই দিনের মধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার সির্দ্ধান্ত হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মুন্টু, অদ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহিদ সাদিক কবির, সদস্য মাসুদ রানা তিলুসহ কার্য্যকারী কমিটির সদস্য।

কাফাতুল্লাহ সরকার লাঞ্চিতের ঘটনার পর তিনি বাদি হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। এই মামলার প্রধান আসামী আফাজ উদ্দিন ও শাহিন আলমকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল জানান, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে কারো সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা কমিটির নিকট প্রতিবেদন পাঠানো হবে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top