৫ কোটিরও বেশি মৃত্যু! ফিরে এল ১৪ শতাব্দীর মারণ বুবোনিক প্লেগ

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১১:০১; আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ২১:০৭

- ছবি - ইন্টারনেট

ভয়ঙ্কর খবর। করোনার মতোই কি আবার ছড়িয়ে পড়বে নতুন মহামারি? মানবদেহে বুবোনিক প্লেগ ছড়িয়ে পড়তেই এই আতঙ্ক ছড়াল। এবার আর চীন নয়, যুক্তরাষ্ট্রেই হদিশ মিলল ভয়ঙ্কর সংক্রামক রোগের, যার কারণে চতুর্দশ শতাব্দীতে ৫ কোটিরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

মার্কিন প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, ওরেগনে মানব শরীরে বুবোনিক প্লেগের হদিস পাওয়া গিয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, পোষা বিড়াল থেকেই মানব শরীরে ছড়িয়ে পড়েছে এই বিরল রোগ।

বুবোনিক প্লেগ নতুন রোগ নয়। মধ্য যুগে এই মারণ রোগেই ইউরোপের এক তৃতীয়াংশ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। ওই মহামারি ‘ব্ল্যাক ডেথ’ নামেও পরিচিত। অত্যন্ত বিরল এই রোগ। অতীতে এর কোনও চিকিৎসা না থাকলেও, বর্তমানে সঠিক সময়ে সংক্রমণ ধরা পড়লে তা চিকিৎসার মাধ্যমে নিরাময় সম্ভব। তবে চিকিৎসকরাও এই প্লেগকে অত্যন্ত ভয়ঙ্কর বলেই ব্যাখ্যা করেছেন।

ওরেগনের ওই আক্রান্ত ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ না করা হলেও, তার চিকিৎসা চলছে বলে জানানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে চিকিৎসক ও গবেষকদের অনুমান, পোষ্য বিড়াল থেকেই বুবোনিক প্লেগ ছড়িয়েছে। আক্রান্তের বা ওই পোষ্যের সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন, তাদের ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়েছে এবং সংক্রমণ আটকাতে ওষুধ দেওয়া হয়েছে।

প্লেগের উপসর্গ কী?

মার্কিন প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, সংক্রমণ দেহে প্রবেশের আটদিন বাদে, উপসর্গ দেখা দেয়। সাধারণত প্লেগে আক্রান্ত পশু বা মাছি থেকেই সংক্রমণ ছড়ায়। বুবোনিক প্লেগের অন্যতম উপসর্গ হল জ্বর, শারীরিক দুর্বলতা, মাথা ঘোরা, শরীরে শিহরণ ও পেশিতে ব্যথা হওয়া।

সঠিক সময়ে ধরা না পড়লে বুবোনিক প্লেগ সেপ্টিসেমিক প্লেগেও পরিণত হতে পারে, যা শরীরের ধমনীকে সংক্রামিত করে। এছাড়া নিউমোনিক প্লেগও হয়, যেখানে ফুসফুস সংক্রমিত হয়। উভয় সংক্রমণই অত্যন্ত গুরুতর।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top