রাবিতে 'মিডিয়া বাকস্বাধীনতা ইসলামোফোবিয়া' ও 'লিখন' শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

রাবি প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ ২০:১৮; আপডেট: ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ ২০:৩৪

ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ইমেরিটাস অধ্যাপক ড.এ.কে. এম. আজহারুল ইসলাম রচিত 'মিডিয়া বাকস্বাধীনতা ও ইসলামোফোবিয়া' ও রাবি লেখক ফোরামের রচিত 'লিখন' নামের ২টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর একাডেমিক ভবনে শিক্ষক লাউঞ্জে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দুটি পর্বে বইগুলো উন্মোচন করা হয়।

প্রথম পর্বে মিডিয়া বাকস্বাধীনতা ও ইসলামোফোবিয়া বইটি উন্মোচন করা হয়। অধ্যাপক ড. আব্দুর রহমান সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ইতিহাস গবেষক ও প্রাবন্ধিক অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান আখন্দের সঞ্চলনায় কি-নোট উপস্থাপন করেন ড. ফজলুল হক তুহিন। গ্রন্থটির উপর মূল আলোচনা পেশ করেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ বেলাল হোসেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাবি লেখক ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মাদ শরীফুল ইসলাম। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন লেখক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. সেতাউর রহমান।

বিশেষ অতিথি সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক ড. ফখরুল ইসলাম বলেন, মানুষ লেখা প্রকাশ না করলে তা হারিয়ে যায়। আজ কেউ আর পড়তে চায় না। সবাই দেখার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে আছে। কেউ এখন আর জ্ঞানের গভীরে যেতে চায় না। লিখন বইটিতে যুগোপযোগী বিষয়ে বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

আইন অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবদুল হান্নান বলেন, বর্তমানে মিডিয়া তরুণ শিক্ষার্থীদের নেতিবাচক প্রভাব গ্রাস করে ফেলেছে। এখানে প্রতিনিয়ত ইসলামকে বিকৃতি করা হচ্ছে। 'লিখন' বইটি তরুণ প্রজন্মকে এ বিষয়ে সচেতন করবে এবং আগামী সমাজ বিনির্মানে কার্যকরী ভুমিকা রাখবে।

ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ বেলাল হোসেন বলেন, মিডিয়া বাকস্বাধীনতা বইটি খুব সুন্দর নামে লেখক আমাদের উপহার দিয়েছেন। আজ মানবতাবাদ নাম দিয়ে একদল লোক ইসলামের বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান যুগের চাহিদার আলোকে বইটি খুবই মূল্যবান একটি বই। বর্তমানের আলোকে এ বইটি পড়ে মানুষ সহজে ইসলামকে ভালো ভাবে চর্চা করতে পারবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন, ইসলামিক স্টাডিজের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, অধ্যাপক ড. আতাউর রহমান, অধ্যাপক ড. জাহিদুল ইসলাম, সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. জামিরুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন, অধ্যাপক ড. মনিরুল হক, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান ফিটু, অধ্যাপক জি এম শফিউর রহমান, অধ্যাপক মুহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মাসুদুল হাসান খান মুক্তা, অধ্যাপক মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও লেখক সরদার আবদুর রহমান, কবি সায়ীদ আবুবকরসহ অন্যন্য অধ্যাপকরা উপস্থিত ছিলেন।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top