ডিবির দাবি ৯ কোটি, গুনে দেখা গেলো ৩ কোটি ৮৯ লাখ

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০২৩ ২৩:০০; আপডেট: ২৭ মার্চ ২০২৩ ১৮:৪৮

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর উত্তরায় ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের সোয়া ১১ কোটি টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় টাকাসহ তিনটি ট্রাংক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ছিনতাইয়ের ঘটনার মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ এগুলো উদ্ধার করে। টাকা উদ্ধারের পর ডিবি জানিয়েছিল, তিনটি ট্রাংকে টাকা থাকতে পারে প্রায় ৯ কোটি। তবে পরে গুনে দেখা গেলো টাকা আছে প্রায় ৩ কোটি ৮৯ লাখ।

এ সময় যে গাড়ি নিয়ে ছিনতাই করা হয় ওই গাড়ির চালককে আটক করা হয়। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতজনকে আটক করে পুলিশ।

শুক্রবার (১০ মার্চ) থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে মানি প্ল্যান্ট লিংক প্রাইভেট লিমিটেডের পাঁচ থেকে সাতজনের সামনে উদ্ধার হওয়া তিনটি ট্রাংক খোলা হয়। এরপর ওইসব ট্রাংকের টাকা গুনে ৩ কোটি ৮৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, এত মোটা অংকের টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনার পর আমাদের ডিবি পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নেমে কাজ শুরু করে। আমাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল টাকাসহ ছিনতাইকারীদের ধরা। মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ছিনতাই হওয়া ৪টি ট্রাংকের মধ্যে ৩টি উদ্ধার করা হয়। ট্রাংক ৩টি উদ্ধারের পরপরই ডিএমপির উত্তরা বিভাগের কাছে হস্তান্তর করি।

তিনি বলেন, আমরা যখন গাড়িসহ (টাকা) উদ্ধার করেছি, তখন ট্রাংকগুলো লক ছিল। সাংবাদিকদেরও লক অবস্থায় দেখানো হয়েছে। ট্রাংকের চাবি ছিল সিকিউরিটি কোম্পানির কাছে। ট্রাংকগুলো তুরাগ থানায় নিয়ে থানা পুলিশ ও সিকিউরিটি কোম্পানির মালিকদের কাছ থেকে চাবি নিয়ে টাকা গোনা হয়। আমরা ট্রাংক উদ্ধার করেছি, কিন্তু টাকা গুনিনি। গতকাল আনুমানিক সংখ্যা বলা হয়েছিল ৯ কোটি টাকা থাকতে পারে। তাই টাকার সঠিক পরিমাণ উত্তরা বিভাগের পুলিশ বলতে পারবে।

এদিকে, এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) দিনগত রাতে মানি প্ল্যান্ট লিঙ্ক প্রাইভেট লিমিটেডের পরিচালক আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে তুরাগ থানায় অজ্ঞাতপরিচয় ১০-১২ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

শুক্রবার দুপুরে ডিএমপি উত্তরা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) বদরুল হাসান জানান, ব্যাংকের টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় টাকা বহনকারী প্রতিষ্ঠানের পরিচালক বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয়দের আসামি করে একটি মামলা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর উত্তরা থেকে বেসরকারি ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের টাকা বহনকারী গাড়ি থেকে প্রায় সোয়া ১১ কোটি টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। দিনের আলোতে রাস্তা থেকে নজিরবিহীন এ ছিনতাইয়ের ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে মাঠপর্যায়ে অভিযানে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে উত্তরা এলাকা থেকে ছিনতাই হওয়া টাকাভর্তি ৪টি ট্রাংকের মধ্যে ৩টি উদ্ধারের কথা জানায় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাসসহ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় সাতজনকে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top