সম্ভাব্য প্রার্থীদের আগাম প্রচারণা

বাগমারায় পৌর নির্বাচনের আগাম হাওয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা | প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০২০ ১৪:৫৬; আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৫:১৩

 

পৌরসভার নির্বাচনের দিন নির্ধারণ করা না হলেও রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনের আগাম হাওয়া বইতে শুরু করেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা আগাম প্রচার প্রচারণায় নেমে পড়েছেন। অনেকে পেষ্টার মেরে এবং বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে চা ষ্টলে বসে নির্বাচনী গনসংযোগ শুরু করেছেন।

ইতিমধ্যে বিভিন্ন দলের নেতা কর্মীদের মধ্যে প্রায় অর্ধ ডজন নেতা আসন্ন ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য মাঠে নেমে পড়েছেন। একই দল থেকে একাধিক প্রার্থী আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য গণসংযোগ শুরু করলেও শেষ অবধি দলের সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ারও কথা বলছেন অনেকে। প্রার্থীদের কেউ কেউ ফেসবুকে ষ্ট্যাটাস দিয়ে তাদের প্রার্থীতার বিষয়ে জানান দিচ্ছেন।

জানা গেছে, সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনের এক সভায় পৌর নির্বাচনের আভাস দেওয়া হয়েছে। এই সূত্রে, আসন্ন ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনের কার্যকাল মেয়াদ শেষ হওয়ায় এটি আগামী নির্বাচনের তালিকায় পড়েছে। বাগমারা উপজেলায় দুটি পৌরসভা। এর মধ্যে ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামীলীগ থেকে রয়েছেন বর্তমান মেয়র ও ভবানীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল মালেক মন্ডল ও পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন।

এছাড়া বিএনপি থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন ভবানীগঞ্জ পৌর সভার সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক প্রাং, জেলা যুবদলের সাবেক সহ সভাপতি আলাউদ্দিন, ভবানীগঞ্জ পৌর যুবদলের আহবায়ক শাহিনুর ইসলাম শাহিন ও ভবানীগঞ্জ পৌর ছাত্র দলের সাবেক সভাপতি আতিকুর রহমান জজ। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে কেউ কেউ থাকলেও এখনো প্রোকাশ্যে প্রচারণা শুরু করেননি।

সম্প্রতি গত আগাষ্ট মাসে জাতীয় শোক বিদসের এক অনুষ্ঠানে বাগমারার সংসদ সদস্য ইঞ্জি এনামুল হক দলীয় প্রার্থী হিসাবে বর্তমান মেয়র ও ভবানীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল মালেক মন্ডলকে আসন্ন ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে প্রার্থীতার বিষয়ে ভোটারদের মত জানিয়েছেন। এ দিকে আব্দুল মালেক মন্ডলের প্রার্থীতার বিষয়ে অনেকটা নিশ্চিত হলেও বসে নেই পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মানুনুর রশিদ মামুন। তিনিও তার প্রার্থীতার বিষয়ে কেন্দ্রসহ জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের সাথে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

এছাড়া বিএনপি থেকে প্রার্থীতার বিষয়ে অনেকটা নিশ্চিত হয়ে বসে আছেন সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আব্দুল রাজ্জাক। আব্দুর রাজ্জাকের পাশাপাশি ভবানীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশি হয়ে নির্বাচনী মাঠে থেকে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন পৌর যুবদলের আহবায়ক শাহিনুর ইসলাম শাহিন। তিনি করোনা সংকটে মানুষের দারে দারে গিয়ে মাস্ক, সাবান, স্যানিটাইজার বিতরণ করেন ও রাস্তাঘাটে জীবানুনাশক স্প্রে করেন। এছাড়া বিগত রমজান মাস জুড়ে গোডাউন মোড় এলাকায় ভ্যান চালকদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরন করে সবার নজর কাড়েন। এছাড়া আতিকুর রহমান আতিক বরাবরই ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এগিযে চলেছেন। একই ভাবে আলাউদ্দিন চায়ের স্টলে স্টলে নিজ প্রার্থীতার ঘোষণা দিচ্ছেন। 

অপর দিকে তাহেরপুর পৌরসভাতে এরিই মধ্যে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছেন। এই পৌর সভাতেই এবারও আওয়ামীলীগ থেকে প্রার্থীতার অনেকটা নিশ্চিত হয়ে আছেন বর্তমান মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ। তিনি টানা দুইবার বেশ সফলতার সাথে এই পৌর সভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। অপরদিকে এই পৌরসভায় বিএনপি থেকে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপি’র সভাপতি আবু নাইম শামসুর রহমান মিন্টু ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলীম বাবু।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার জানান, মেয়াদ শেষ হতে চলা ভবানীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের বিষয়ে আমাদের কাছে তথ্য চাওয়া হয়েছে। আমরা এসব তথ্য তৈরির কাজ শুরু করেছি। তবে নির্বাচন বিষয়ে এখনো কোন নির্দেশনা আসেনি। নির্দেশনা এলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়া হবে।

কাফি/০১



বিষয়: বাগমারা


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top