১ ডিসেম্বর থেকে পরিবহণ ধর্মঘট আহ্বান

রাজশাহীতে বিএনপি’র গণসমাবেশ সফল করতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২২ ১৫:৪২; আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০২২ ১৫:৪৩

ছবি: ফাইল

রাজশাহীতে আগামী ৩ ডিসেম্বর শনিবার বিএনপি’র বিভাগীয় গণসমাবেশ সফল করতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। এদিকে দেশের অন্যান্য বিভাগীয় সমাবেশের প্রাক্কালে পরিবহণ ধর্মঘটের মতো রাজশাহী বিভাগেও ১ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে।

বিএনপির গণমহাসমাবেশ প্রস্তুতি কমিটির দায়িত্বশীলরা বলছেন রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা মাঠে ৩ ডিসেম্বর গণমহাসমাবেশ হবে। ইতোমধ্যে প্রশাসন থেকে সমাবেশের অনুমতি মিলেছে। তবে রাজশাহী মহানগর পুলিশ বলছে, বিএনপি নেতারা জেলা প্রশাসনসহ মহানগর পুলিশের কাছে মাদরাসা মাঠে ৩ ডিসেম্বর মহাসমাবেশ করার জন্য অনুমতি চেয়েছেন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে পরে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

পরিবহন ধর্মঘট ১ ডিসেম্বর থেকে: এদিকে মহাসড়কে ৩ চাকার যান চলাচল বন্ধসহ ১০ দফা দাবি জানিয়ে রাজশাহী বিভাগীয় পরিবহন মালিক সমিতি আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট ঘোষণা করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। শনিবার রাতে রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহণ মালিক শ্রমিক পরিষদ নেতারা জানান, নাটোরে রাজশাহী বিভাগের আট জেলার নেতাদের সাথে বৈঠক হয়েছে। সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, রাজশাহী বিভাগের মহাসড়ক থেকে অবৈধ যান চলাচল বন্ধ না করা হলে তারা আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট দেবেন।

প্রচার চলছে: গণসমাবেশ কমিটির টিম লিডার ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু জানিয়েছেন, মাদরাসা মাঠের গণমহাসমাবেশ হবে স্মরণকালের বৃহৎ একটি সমাবেশ। আনুমানিক ১০ লাখ নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ এ মহাসমাবেশে যোগ দেবেন বলে তার আশা। তিনি বলেন, মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন বিভাগের মাঠের নেতাকর্মীরা। শনিবার নগরীতে সমাবেশের প্রচারপত্র বিতরণের উদ্বোধন করা হয়। সাহেব বাজার ও সংলগ্ন এলাকায় প্রচারপত্র বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি’র উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও এমপি মিজানুর রহমান মিনু, কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক রাসিক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, কেন্দ্রীয় নেতা ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. শফিকুল হক মিলন প্রমুখ। এছাড়া ওয়ার্ড পর্যায়ে মিছিল করা হচ্ছে। মাইকিংও শুরু হয়েছে ইতোমধ্যে। জেলা-উপজেলায় চলছে প্রস্তুতি সভাও।

মামলা-হয়রানির অভিযোগ: গণসমাবেশের আগে রাজশাহী বিভাগের থানায় থানায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলার হিড়িক পড়েছে বলে জানা গেছে। এরই মধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন শতাধিক নেতাকর্মী। বিভাগীয় গণসমাবেশ উপলক্ষে নেতাকর্মীদের মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে পুলিশ গায়েবি মামলা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা। যদিও মামলাগুলোর এজাহারের ভাষা একই। শুধু আসামী ও ঘটনাস্থল ভিন্ন। বিএনপি নেতারা বলছেন, মামলাগুলোর সাক্ষীরাও জানেন না কী ঘটনা ঘটেছে। তবে পুলিশ বলছে, তাদের রুটিন ওয়ার্কের বাইরে কিছু হচ্ছে না। তারা পেশাদারিত্বের সাথেই কাজ করছে।

এনএ



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top