এশিয়া কাপ থেকে বাংলাদেশের বিদায়

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:০৪; আপডেট: ২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:০৫

ছবিঃ সংগৃহীত

এশিয়া কাপ টি- টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে বাংলাদেশকে বিদায় করে শেষ চারে জায়গা করেছে শ্রীলঙ্কা। দুবাই আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোমাঞ্চকর ম্যাচে বাংলাদেশকে ২ উইকেটে হারিয়েছে লঙ্কানরা। আগে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৮৩ রান করে বাংলাদেশ । জবাবে খেলতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় শ্রীলঙ্কা। ম্যাচ সেরা হয়েছেন শ্রীলঙ্কার কুশাল মেন্ডিস

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেরা চারে খেলা নিশ্চিত করতে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। দুবাই আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানায় স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। প্রথম ম্যাচে ব্যর্থতার পর টাইগার একাদশে এদিন আনা হয় তিন পরিবর্তন। দুই ওপেনার নাঈম শেখ ও এনামুল হক বিজয় এবং পেসার সাইফুদ্দিনের পরিবর্তে একাদশে ফেরেন মেহদী হাসান মিরাজ, সাব্বির রহমান ও এবাদত হোসেন। এদিন অভিষেক হয় পেসার এবাদত হোসেনের।

আগে ব্যাট করতে নেমে মারমুখি শুরুর ইঙ্গিত দেন দুই টাইগার ওপেনার সাব্বির রহমান ও মেহেদী হাসান মিরাজ। ওপেনিং জুটিতে যোগ করেন ১৯ রান। দীর্ঘ দিন পর দলে ফেরা সাব্বির সাজঘরে ফিরেন ৫ রান করে। তবে অপর প্রান্তে থাকা মিরাজ বাউন্ডারি আর ওভার বাউন্ডারিতে ২৬ বলে করেন ৩৮ রান। বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ২ উইকেটে ৫৮ রান।

মিরাজের বিদায়ের পর উইকেটে স্থায়ী হতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। এরপর আফিফকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন সাকিব আল হাসান। ২২ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ২৪ রান করে মহেশ থেকশানার শিকার হয়ে সাজঘরে =ফেরেন টাইগার অধিনায়ক। বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ৮৭ রান।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে বাংলাদেশকে লড়াকু সংগ্রহের পথে এগিয়ে নিতে থাকেন আফিফ হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তাদের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে গড়েন ৫৭ রানের জুটি। ব্যক্তিগত ৩৯ রান নিয়ে ফিরে যান আফিফ। বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদও। দলীয় ১৪৭ রানে সাজঘরে ফেরেন ৬ টাইগার ব্যাটসম্যান। তবে শেষ দিকে মোসাদ্দেক হোসেন ও তাসকিন আহমেদের ঝড়ো ২৪ রানে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৭ উইকেটে ১৮৩ রান।

জবাবে খেলতে নেমে শুরুটা আক্রমণাত্মক করলেও টাইগার বোলারদের সামনে দিশে হারায় শ্রীলঙ্কার টপ অর্ডার। ৭৭ রান করতে সাজঘরে হাটেন চার ব্যাটসম্যান। বিপর্যস্ত লঙ্কানদের একাই টেনে নিতে থাকেন কুশাল মেন্ডিস। ব্যক্তিগত ৬০ রানে মোস্তাফিজের শিকার হয়ে থামেন এই লঙ্কান।

মেন্ডিস ফিরলে লঙ্কানদের হাল ধরেন দাসুন শানাকা। দায়িত্বশীল অধিনায়কের মত ৩৩ বলে ৪৫ করেন তিনি। এরপর জমে উঠে ম্যাচ। শেষ ওভারে অসিথা ফার্নান্দোর ১০ রানের ইনিংসে জয় পায় স্বাগতিকরা।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top